if you want to donate in bit coin donate this address 18PxKRjXYqwonNdYgKisdiNNByqYCTXFeP

Click The ad and start earning

FarmSatoshi Enjoy Free Satoshi!

Thursday, July 16, 2015

বিট কয়েন সাইট থেকেই বিটিসি ইনভেস্ট করে বিট-কয়েন আয় বৃদ্ধি করুন আরেকটি ধাপে!!

আশা করি সবাই এক প্রকার কুশলেই আছেন। আজকের টিউনে প্রাথমিক পর্ব হিসাবে বিট কয়েনের আয় বৃদ্ধি সম্পর্কে আলোচনা করব। আবারো রিপিট আকারে বলছি, বিট কয়েন সম্পর্কে নতুন ভাবে আলোচনা করে সময় নষ্ট করব না।কারন, বিট কয়েন সম্পর্কে অনেকেরই ধারনা আছে এই বিষয় নিয়ে একাধিক টিউন করা আছে। তাছাড়া আমি প্রমানাদিসহ বিস্তারিতভাবে টিটিতে এই বিষয়ে একটি টিউন করেছিলাম। টিউনের টিউমেন্টসহ অন্যান্য যোগাযোগ মাধ্যমে পাঠকেরা আমাকে প্রশ্ন করেছিলেন কিভাবে বিট কয়েনের আয় বৃদ্ধি করা যাবে? অবশ্য সেখানে উল্লেখ করেছিলাম পরবর্তীতে এই বিষয়ে টিউন করব যা আজকের পর্বতে আপডেট করছি।
হ্যা এর মধ্যে হয়ত অনেকেই বুঝতে পেরেছেন বিট কয়েন হতে অল্প কিছু হলেও সত্যিকারভাবে আয় করা যায়। কিন্তু এই আয় খুব মামুলি। আসলে বিট কয়েন আয় বৃদ্ধি করার বেশ কয়েকটি পদ্ধতি রয়েছে তাহলো-
১। নিয়মিতভাবে একটু হলেও সেই সব সাইটে কাজ করা করা যেমন প্রতিদিনে ২৪ ঘন্টার মধ্যে অন্তত ৭-৮ বার ক্যাপচা পূরন।

২। একটি বিট কয়েন সাইটের পাশাপাশি আরো কয়কেটি লিগ্যাল বিট কয়েন সাইটে কাজ করা।
৩। বিট কয়েন সাইটে ইনভেস্ট করা। থুক্কু ডোল্যান্সার কিংবা পিটিসি নই যে, আপনার পকেটের টাকা খরচ করতে হবে। এখানে আপনার বিট কয়েন আয়কে অন্য কোন সাইটে ইনভস্টে করবেন যেখানে প্রতিদিনে ১-২.৫ পর্যন্ত লাভ পাবেন। তবে এখানেও স্মরন রাখতে হবে বিট কয়েন সাইটের মত ইনভেস্ট সাইটিও বৈধ হতে হবে।

জ্ঞাতব্য বিষয়

অনেকেরই টিটিসহ নিজস্ব ব্লগে বিট কয়েন আয়ের প্রায় ডজনখানেক ঠিকানা শেয়ার করতে দেখছি। আমি নিজেও পরীক্ষা করে দেখেছি সেইগুলোর ২/১ টি ব্যতিত সবই ভূয়া। অবশ্য এখানো পর্যবেক্ষনে আছি। যাইহোক লিংক শেয়ার করতে দোষ নাই। কিন্তু ভূয়া ভাবে কাজ করে সবই হবে পন্ডশ্রম। তাই যে কোন সাইটে কাজ করার পূর্বে নিশ্চিত হওয়া কিংবা রিভিউ জেনে নেওয়া ভাল।

বিট কয়েন সাইট হতে বিটিসি ইনভেস্ট করে বিট-কয়েন আয় বৃদ্ধি করুন

উপরের পয়েন্ট অনুযায়ী এটিও একটি অন্যতম পদ্ধতি। মানে আপনি যে বিট কয়েন আয় করছেন সেই বিট কয়েন আয়ের কিছু অংশ বিট কয়েন সাইটে ইনভেস্ট করে আয়কে আরেকটু ধাপে বৃদ্ধি করতে পারবেন। বিট কয়েন আয়ে ইনভেস্টের প্রায় অনেক গুলো সাইট রয়েছে। তবে সকল সাইটের সুবিধা সমান নই, কম-বেশী অসুবিধা আছে।
যেমন:
১। অনেক পরিমাণ বিট কয়েন ইনভেস্ট করতে হয় প্রায় ৫০ ডলারের উপরে।
২। ৩-৬ মাসের পূর্বে লাভের অংশ উইথড্র করা যাবে না।
৩। নিয়মিত কাজ না করলে মানে একাউন্ট লগইন করা না হলে লাভের অংশ কর্তন যাবে।
৪। রেফারেলের ব্যাপার-স্যাপার থাকে ইত্যাদি।
আমি প্রায় ৩ মাস যাবত বেশ কয়েকটি সাইট পর্যবেক্ষণ করে এমন একটি সাইট পেয়েছি যেখানে আপনি যে কোন পরিমান বিট কয়েন ইনভেস্ট করতে পারবেন। এই সাইটটি খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। কোন ফেক সাইচ নই ১০০% লিগ্যাল। এই সাইটের নাম হচ্ছে সাইয়্যানও

এই সাইটের সুবিধাবলী নিম্নরুপ

১। বড় ধরনের কোন ঝুকি নাই।
২। বিট কয়েন গ্লোবাল ভেন্ডর কর্তৃক অনুমোদিত।
৩। একাউন্ট প্রটেকশনের দিক হতে ১০০% ঝুকিমুক্ত।
৩। যে কোন পরিমান বিট কয়েন ইনভেসট করতে পারবেন যেমন: ০.০০০০২৫ BTC।
৫। অন্য যে কোন সাইটের তুলনায় লাভের পরিমান বেশী। প্রতিদিনে প্রায় ২.৫%
৬। লাভের অংশ প্রতিদিনে কিংবা সাথেই সাথেই উইথড্র করতে পারবেন।

কিভাবে ইনভেস্ট করে আয় বৃদ্ধি করবেন ও কাজ করার কৌশল

১। প্রথমে এই সাইটের একটি একাউন্ট ওপেন করতে হবে, ক্লিক করুন এখানে > Create Account এ-ক্লিক করুন > নিম্নরুপ চিত্র আসবে।
২। এখানে যাবতীয় তথ্য পূরন করে Create Account এ- ক্লিক করলে আপনার ইমেইলে একটি লিংক যাবে। সেটি ভেরিফাই করে একাউন্টে লগইন করুন।
৩। লগইন করলে নিম্নরুপ চিত্র আসবে
৪। আপনি যদি বিট কয়েন ইনভেস্ট করতে চান তাহলে বাম পাশের প্যানেল হতে Investment এ-ক্লিক করুন। সেখানে আপনি ডিপোজিত করার একটি ঠিকানা পাবেন। উক্ত ঠিকানাতে আপনাকে কয়েন বেইজ  সাইট হতে বিট কয়েন Deposit/Sent করতে হবে নিচের চিত্রের মত।
৫। Deposit করার জন্য আপনাকে কয়েন বেইজ সাইটে লগইন করতে হবে (যদি একউন্ট করা থাকে) সেখান হতে কত পরিমান বিট কয়েন সেন্ড করতে চান তাহা উল্লেখ করে এই ইনভেস্টমেন্ট সাইটের ঠিকানাতে প্রেরন করুন।
এবং হ্যা কয়েন বেইজ সাইট হতে আপনার ৩৪ বর্নের বিট কয়েন এড্রেসটি টুকে নিন। কারন এটি আপনাকে ইনভস্টেমেন্ট সাইটের Profile অংশে আপডেট কিংবা সংযুক্ত করে নিন। যখন উক্ত সাইট হতে লাভের পরিমান Withdrawal করবেন তাহলে তা কয়েনবেইজ সাইটে জমা হয়ে যাবে। একটু ঘাটাঘাটি করলে ব্যাপারটি নিজেই বুঝতে পারবেন বলে আশা রাখি।
৬। আপনি এখানে কত বিট কয়েন ইনভেস্ট করেছেন, প্রতদিনে কত লাভ করেছেন কিংবা Withdrawal করেছেন তার সবই History অংশে ক্লিক করলেই জানতে পারবেন।

পর্যবেক্ষণ

আপনি এখানে প্রাথমিক On test হিসাবে ১ ডলার কিংবা ০.৫০ ডলার সমপরিমান বিট কয়েন ইনভেস্ট করে দেখতে পারেন। লাভের ফলাফল ভাল হলে পরবর্তীতে ইনভেস্ট একটু একটু করে বৃদ্ধি করতে পারেন। যেমন প্রাথমিকভাবে আমি ২ ডলারের মত ইনভেস্ট করেছি এবং লাভের পরিমানও পেয়েছি। প্রমানচিত্র নিম্নরুপ-

সারকথা

আলোচনা করতে করতে একদম টিউনের শেষ পর্যায়ে। আশা করি টিউনের আলোচনা অনুযায়ী নিজেই কাজগুলো করতে পারবেন এবং একটু হলেও বিট কয়েন আয়ের পরিমান আরেকটু ধাপে বৃদ্ধি করতে পারবেন। এই সাইটের অন্যতম বৈশিষ্ট হল এখানে ডিপোজিত করার পর অন্য কোন কাজ করা লাগে না কিংবা একাউন্ট কখনোই ডিজাবল হবে না। তবে কখনোই একের অধিক একাউন্ট ক্রিয়েট না করাটাই শ্রেয়। পরিশেষে আরেকটি নিবেদন, আমি বিট কয়েন আয় নিয়ে যতগুলো টিউন করেছি তা কখনোই ফ্রিল্যান্স আয়ের সমকক্ষ বলে মনে করবেন না!  কারন আপনাকে অনলাইনে ভাল আয়ের পথ হিসাবে অবশ্যই ফ্রিল্যান্স (ইল্যান্স, ওডেস্ক, গুরু, ফাইভার) শিখতে হবে ও জানতে হবে। তাই ফ্রিল্যান্স বিষয়ে সত্যিকার অর্থে কাজ করার প্রবল আগ্রহ থাকলে অন্য সকল কাজের পাশাপাশি ফ্রিল্যান্স বিষয়ে জানা ও শেখার পরামর্শ রইল।
collected tune

No comments:

Post a Comment